post

প্রশ্নোত্তর পর্ব : কেন্দ্রীয় সভাপতি

প্রশ্নোত্তর পর্ব : কেন্দ্রীয় সভাপতি

২০ অক্টোবর ২০২২

প্রশ্ন : ছাত্রশিবির নেতৃত্ব গঠনের ক্ষেত্রে চমৎকার ভ‚মিকা পালন করছে। কিন্তু দেশের বর্তমান প্রেক্ষাপটে ছাত্ররাজনীতির অঙ্গনে ছাত্রশিবির তেমন ভ‚মিকা রাখতে পারছে না। যারা রাজনৈতিক ক্যারিয়ার গঠন করতে চায় তাদের জন্য ছাত্রশিবির কী কী ভ‚মিকা রাখছে বা রাখার পরিকল্পনা করছে? তারেক রহমান, শিক্ষার্থী, হালুয়াঘাট শহীদ স্মৃতি সরকারি কলেজ ময়মনসিংহ

উত্তর : আলহামদুলিল্লাহ আপনার প্রথম উক্তিটির সাথে আমরা একমত। ছাত্রশিবির তার কার্যক্রমের মধ্য দিয়ে নেতৃত্বের উপযোগী একদল দক্ষ, নৈতিক ও মানবীয় গুণাবলিসম্পন্ন প্রজন্ম গড়ে তুলতে কার্যকর ভ‚মিকা পালন করছে। কিন্তু বর্তমান প্রেক্ষাপটে ছাত্ররাজনীতির অঙ্গনে ছাত্রশিবির তেমন ভ‚মিকা রাখতে পারছে না এই কথাটির সাথে সম্পূর্ণ একমত হতে পারছি না।

একটি বিকল্প শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান হিসেবে ছাত্রশিবিরের মূল কাজ হলো দেশ ও জাতির জন্য প্রয়োজনীয় সকল ক্ষেত্রে  সৎ, দক্ষ এবং দেশপ্রেমের আদর্শে উজ্জীবিত নেতৃত্ব তৈরি করা এবং সে লক্ষ্যে কার্যকর প্রশিক্ষণ কার্যক্রম পরিচালনা করা। আপনি জেনে খুশি হবেন যে, যে বা যারা ন্যায়ভিত্তিক সমাজ বিনির্মাণের এই মহান লক্ষ্যে ছাত্র বা জাতীয় রাজনীতিতে কার্যকর ভ‚মিকা রাখতে চায় তাদের জন্য ছাত্রশিবির কুরআনিক আদর্শ, দর্শন এবং যুগ-জামানার সমস্যা সমাধানে সক্ষম একদল যোগ্য ও নির্ভীক নেতৃত্ব তৈরিতে প্রাতিষ্ঠানিক পড়ালেখার পাশাপাশি সাহিত্য-সংস্কৃতি, জাতীয়-আন্তর্জাতিক রাজনীতি-অর্থনীতি, খেলাধুলা ও শরীরচর্চা, পরিবেশ ও জলবায়ু পরিবর্তন, মহাকাশ ও ভ‚-তত্ত¡বিদ্যা, জ্বালানি ও স্বাস্থ্য, আইন ও বিচার সংক্রান্ত সকল বিষয়ে সচেতন হিসেবে গড়ে তুলতে সিলেবাসভিত্তিক পাঠচক্র পরিচালনা ও তার বাস্তব প্রশিক্ষণ প্রদানের জন্য সাধারণ শিক্ষার্থীদের নিয়ে বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলা ও পরিচালনা করা হয়। এ ছাড়া ছাত্র অধিকার নিশ্চিত করার লক্ষ্যে বিভিন্ন ছাত্র সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করা, এমনকি জাতীয় স্বার্থে বিভিন্ন রাজনৈতিক কর্মসূচি গ্রহণ করা ছাত্রশিবিরের নিয়মিত কাজ। এ ছাড়া ছাত্রবান্ধব সকল ক্ষেত্রে উদ্যোগ গ্রহণের মাধ্যমে এই বিকল্প শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ন্যায়বিচার নিশ্চিত করার বাস্তব প্রশিক্ষণ প্রদান করে থাকে যা ভবিষ্যতে যেকোনো ব্যক্তির রাজনৈতিক ক্যারিয়ার গড়তে যৌক্তিক ভ‚মিকা রাখবে বলে প্রত্যাশা করি।

প্রশ্ন : বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির সাধারণ ছাত্রসমাজের জন্য, সাধারণ জনগণের জন্য এবং দেশের জন্য অতীতে কি কি ভ‚মিকা রেখেছে? এবং ভবিষ্যতে কী কী ভ‚মিকা রাখবে বলে আপনি মনে করছেন?

- আব্দুল মালেক, কাশিমপুর হাইস্কুল অ্যান্ড কলেজ, গাজীপুর মহানগর

উত্তর : ছাত্রশিবির হলো একটি স্বতন্ত্র আদর্শিক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, জান্নাতের উপযোগী মানুষ গঠন ও সুখী সমৃদ্ধ ইসলামী সমাজ বিনির্মাণ যার লক্ষ্য। এজন্য শিবির তার প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই ছাত্রসমাজের মেধা-মনন ইসলামের আলোকে বিকাশের লক্ষ্যে সবসময় যুগোপযোগী কর্মসূচি নিয়ে তাদের পাশে দাঁড়িয়েছে। যেকোনো সমস্যা সমাধানের লক্ষ্যে সামনে থেকে অগ্রণী ভ‚মিকা পালন করেছে। ছাত্রসমাজের অতীতের গৌরবোজ্জ্বল অবদান ধরে রাখা এবং অন্যান্য ছাত্রসংগঠনের কলুষতা থেকে ছাত্রদের মুক্ত রাখতে সর্বোচ্চ চেষ্টা করে যাচ্ছে।

ব্যক্তিজীবনের গণ্ডি থেকে শুরু করে সমাজজীবন, রাষ্ট্রীয় জীবনসহ সকল পর্যায়ে সৎ, দক্ষ এবং আদর্শিক দেশপ্রেমী ও দুর্নীতিমুক্ত গবেষক, ইঞ্জিনিয়ার, অর্থনীতিবিদ, সমাজবিদসহ বিভিন্ন সেক্টরে লোক তৈরির পিছনে মূল চালিকাশক্তি হিসেবে কাজ করে যাচ্ছে; যারা দেশ ও বিদেশে ইসলামী সমাজ গঠনে অগ্রণী ভ‚মিকা পালন করে যাচ্ছে। বিভিন্ন সময় ছাত্র সংসদ নির্বাচনে অংশ নিয়ে যোগ্যতাকে আরো শাণিত করেছে।

উপরোক্ত কার্যক্রম ছাড়াও ছাত্রশিবির দুর্বল এবং পিছিয়ে পড়া শিক্ষার্থীদেরকে এগিয়ে নিতে শিক্ষাবৃত্তি প্রদান, লেন্ডিং লাইব্রেরি, লজিং টিউশন প্রদান, শিক্ষা উপকরণ বিতরণ, পঙ্গু-মেধাবী ছাত্রদের মাঝে হুইল চেয়ার বিতরণ, অনাথ ও নি¤œ আয়ের পরিবারের ছাত্রদের সাথে খাবার গ্রহণ, শীতবস্ত্র উপহার প্রদান, অদম্য মেধাবীদের সংবর্ধনা, ক্যারিয়ার গাইডলাইন প্রোগ্রাম, কম্পিউটার মেলা, বিজ্ঞান মেলা, সাধারণ জ্ঞানের আসর, বিতর্ক ও আবৃত্তি প্রতিযোগিতার আয়োজনের মাধ্যমে একটি সুষম ও উন্নত দেশগঠনে ভ‚মিকা পালন করে যাচ্ছে। সুখী সমৃদ্ধ আদর্শ ইসলামী সমাজ গঠনের ছাত্রশিবিরের এ প্রচেষ্টা সব সময় চলমান থাকবে ইনশাআল্লাহ।

প্রশ্ন : আমার এক বন্ধুকে ইসলামী আন্দোলনে আনার জন্য তার সাথে বেশ কিছুদিন থেকে দাওয়াতিমূলক আলোচনা করছিলাম। তার এক বড় ভাই আলেম। আমার বন্ধু আমার দাওয়াতে সাড়া দিবেন কিনা, তার বড় ভাইয়ের কাছ থেকে পরামর্শ নিয়েছে। তার সেই ভাই নাকি বলেছেন, শিবির শিরক করে। শিবির নাকি মনে করে ‘জনগণই ক্ষমতার মূল উৎস’Ñ এই কথা কতটুকু যুক্তিযুক্ত? 

- মো. মনির হোসেন, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, কুষ্টিয়া

উত্তর : প্রিয় ভাই এ অভিযোগটি সত্য নয়। জনগণকে সকল ক্ষমতার উৎস মনে করা শিরক। মহান আল্লাহ সূরা আনয়ামের ৫৭ নম্বর আয়াতে বলেন, ফায়সালার ক্ষমতা একমাত্র আল্লাহর হাতে। তা ছাড়া শিবিরে মূল লক্ষ্য উদ্দেশ্য আল্লাহ প্রদত্ত ও রাসূল সা. প্রদর্শিত বিধান অনুযায়ী মানুষের সার্বিক জীবনে পুনর্বিন্যাস সাধন করা। ছাত্রশিবির কোথাও এই কথা বলে নাই যে, জনগণ সকল ক্ষমতার উৎস। 

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান প্রশাসন যে পদ্ধতিতে বিভিন্ন নির্বাচন আয়োজন করে সেখানে মানুষের ভোটে নেতৃত্ব নির্বাচন করা হয় এমন প্রচলিত অনেকগুলো পদ্ধতির মধ্যে তারা গণতন্ত্রকে অধিক গ্রহণযোগ্য মনে করে। কিন্তু এর অর্থ এই নয় যে তারা জনগণকে সকল ক্ষমতার উৎস মনে করে। সবচেয়ে বড় কথা, কোনো দল বা গোষ্ঠী বড়জোর সেই দেশের প্রচলিত আইনের বিরুদ্ধে কথা বলতে পারে, আন্দোলন করতে পারে কিন্তু সেই আইনের বিরুদ্ধে যাওয়ার সুযোগ আদৌ কি তাদের আছে? ফিকহি মূলনীতি হলো নিশ্চয়ই শরিয়তের বিধানসমূহ উদ্দেশ্যের উপর নিহিত। এখন আপনি যে কাজটি করছেন সেইটার উদ্দেশ্য ধর্তব্য হবে। রাসূল সা. বলেন, প্রত্যেকটি কাজ নিয়তের উপর নির্ভরশীল। (বুখারি-১ নং হাদিস)। শরিয়ত হলো মানুষের কল্যাণের জন্য এবং কষ্ট নিরসনের জন্য। সংগঠন কখনোই এ কথা মেনে নেয়নি বা কোনোভাবেই বিশ্বাস করে না এবং ধারণা করে না যে, জনগণ সকল ক্ষমতার উৎস। বরং ছাত্রশিবির এটা প্রচার এবং প্রতিষ্ঠিত করতে চায় যে, সকল ক্ষমতার উৎস একমাত্র আল্লাহ তায়ালা।

প্রিয় ভাই, আপনি একটা বিষয় খেয়াল করবেন- গণতন্ত্র, সমাজতন্ত্রসহ অন্যান্য মতবাদ যেগুলো কুরআন ও হাদিস এবং ইসলামী আইন বিরোধী বলে সেগুলোর বিরুদ্ধে সংগঠন সবসময় সক্রিয় ভ‚মিকা পালন করে আসছে। আমাদের সংগঠনের সিলেবাসভুক্ত বইগুলো থেকে এ সম্পর্কিত বই আপনার বড় ভাইকে পড়তে দিলে আমার বিশ্বাস, উনার এই ভুল ধারণার অপনোদন হবে ইনশাআল্লাহ। আসলে আমাদের ব্যাপারে এসব অপপ্রচার মাত্র। এর সাথে আমাদের দূরতম সম্পর্ক নেই, সম্পর্ক রাখার কিংবা চিন্তা লালন করার সুযোগ কোনো মুসলিমের নেই। আমরা প্রচলিত মতবাদসমূহের ততটুকুই গ্রহণ করি যতটুকু ইসলাম বিরোধী নয়। সুতরাং সংগঠন শিরক করে এই বিষয়টি ভিত্তিহীন।

আপনার মন্তব্য লিখুন

কপিরাইট © বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির